Breaking News
উৎসশ্রী পোর্টাল

উৎসশ্রী পোর্টাল থেকে বদলির জন্য কিভাবে আবেদন করবেন? । Utsashree Portal-এ শিক্ষকরা ট্রান্সফারের আবেদন করুন

উৎসশ্রী পোর্টাল/Utsashree Portalঃ পশ্চিমবঙ্গ সরকার শিক্ষকদের নিজের জেলায় ট্রান্সফার বা বদলির জন্য ‘উৎসশ্রী’ নামে একটি পোর্টাল চালু করেছে। এই পোর্টালের মাধ্যমে শিক্ষকরা তাদের নিজের জেলায় বদলির জন্য আবেদন করতে পারবেন। এই বদলির যাবতীয় প্রক্রিয়া এই পোর্টালের মাধ্যমে সম্পন্ন হবে। এই পোস্টে কে বা কাহারা বদলি জন্য আবেদন করতে পারেন, কি কি ডকুমেন্টস প্রয়োজন, কিভাবে আবেদন করতে হবে, এই সমস্ত তথ্য বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হলো।

কে বা কাহারা উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির জন্য আবেদন করতে পারবে?

প্রাথমিক, উচ্চ প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলির শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মীরা জেনারেল ও মিউচুয়াল ট্রান্সফার বা বদলির জন্য আবেদন করতে পারেন।

উৎসশ্রী পোর্টালটিতে কি কি সুবিধা পাওয়া যাবে?

  • শিক্ষক শিক্ষিকা ও শিক্ষা কর্মী এমনকি লাইবেরিয়ানরাও এই পোর্টালের মাধ্যমে অনলাইনে নিজের জেলায় বদলি জন্য আবেদন করতে পারবেন।
  • আবেদন করার পর তাদের আবেদনপত্রের অবস্থান কোন পর্যায়ে রয়েছে তা জানতে পারবেন।
  • শিক্ষক শিক্ষিকা ও শিক্ষাকর্মীদের আবেদনগুলি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নিষ্পত্তি করা হবে।

উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির আবেদন করার জন্য যোগ্যতার মানদন্ড কি কি?

  • আবেদনকারীকে বর্তমান বিদ্যালয় কমপক্ষে ৫ বছর কর্মরত থাকতে হবে।
  • আবেদনকারীর বয়স ৫৯ বছরের মধ্যে হতে হবে।
  • মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে পোস্টিং এর স্থান ২৫ কিলোমিটারের বেশি হওয়া প্রয়োজন। প্রমাণস্বরূপ আপলোড করতে হবে গুগল ম্যাপ এর স্ক্রিনশট অথবা আরটিও অফিস থেকে ডিসটেন্স সার্টিফিকেট।
  • প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা একই সার্কেলের মধ্যে আবেদন করতে পারবেন না।
  • শেষ বদলি বা ট্রান্সফারের পাঁচ বছরের মধ্যে কোন শিক্ষক বা শিক্ষাকর্মী আবেদন করতে পারবেন না।
  • কোন শিক্ষক বা শিক্ষাকর্মী বদলির আদেশ প্রত্যাখ্যান করলে ৭ বছর পূর্ণ হওয়ার আগে তিনি আর আবেদন করতে পারবেন না।
  • আবেদনকারী শিক্ষক বা শিক্ষাকর্মী সাময়িক বরখাস্তের অধীনে থাকলে বা শৃঙ্খলামূলক কাজকর্ম/ বিচারক কাজকর্মের সম্মুখীন হন বা আর্থিক অনিয়মের অভিযোগে অভিযুক্ত থাকেন তাহলে সে বদলির জন্য আবেদন করতে পারবেন না।
  • যদি কোন আবেদনকারীর বাড়ি থেকে স্কুলের মিনিমাম দূরত্ব ২৫ কিলোমিটারের কম হয় যদি তার মেডিকাল গ্রাউন্ড থাকে তবে তিনি আবেদন করতে পারবেন।

স্কোর কিভাবে ক্যালকুলেট করা হবে ?

স্কোরকার্ড করা হবে চাকরির মেয়াদ কাল ও দূরত্বের ভিত্তিতে।
চাকরির মেয়াদ কাল:
ধরুন আবেদনকারী ৩১/১২/২০০৫ এর আগে জয়েন করেছেন সেই ক্ষেত্রে ৩১/১২/২০০৫ পর্যন্ত প্রতিটি কমপ্লিটেড বছরের জন্য দুই নম্বর করে পাবেন। এবং বছর পূর্ণ না হলে ৬ থেকে ১১ মাসের মধ্যে হলে এক নম্বর করে পাবেন।
আবার যারা ১/১/২০০৬ এর পরে চাকরি পেয়েছেন তারা প্রতিটি বছরের জন্য এক নম্বর করে পাবেন এবং বছর পূর্ণ না হলে ৬ থেকে ১১ মাস হলে হাফ নম্বর পাবেন।
কোন আবেদনকারী সর্বোচ্চ ২০ নম্বরের বেশি পাবেন না। এই হিসাপ হবে লাস্ট ডেট অফ অ্যাপ্লিকেশন পর্যন্ত।
আবেদনকারী মহিলা হলে, যদি তার সন্তানের বয়স দশ বছরের কম হয় তাহলে তিনি ৫ নম্বর পাবেন। আর সন্তানের বয়স ১০ এর বেশি হলে তিন নম্বর পাবেন। সন্তানের বয়স ধরা হবে লাস্ট ডেট অফ অ্যাপ্লিকেশন পর্যন্ত।

শারীরিক প্রতিবন্ধী হলে, আবেদনকারী যদি শারীরিক প্রতিবন্ধকতা ৪০ শতাংশ বা তার বেশি হয় তাহলে সর্বোচ্চ ৫ নম্বর পাবে।

বাসস্থান থেকে বর্তমান স্কুল এর দূরত্ব:

প্রতি ৫০ কিমি তে ১ নম্বর পাবেন । এ ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৬ নম্বর পাবেন। সার্ভিস বুক এর এড্রেস ধরা হবে।
আবেদনকারীর বর্তমান স্কুল এবং তার স্বামী বা স্ত্রীর কর্মস্থলের দূরত্ব ৫০ থেকে ১০০ কিলোমিটার হলে ১ নম্বর। ১০০ থেকে ২০০ কিলোমিটার হলে ২ নম্বর। আর ২০০ কিলোমিটার এর বেশি হলে ৩ নম্বর পাবেন।

উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির আবেদন করার জন্য কি কি ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন?

  • অসুস্থ সংক্রান্ত কারণে বদলির জন্য আবেদন করলে সেই অসুস্থ সংক্রান্ত সমস্ত নথি পত্র।
  • শারীরিক অক্ষমতা বা স্থায়ী পঙ্গুত্বতার কারনে বদলির জন্য আবেদন করলে স্থায়ী অক্ষমতা সংক্রান্ত নথিপত্র প্রয়োজন এবং শারীরিক অক্ষমতা ৪০% উপর থাকতে হবে।
  • মহিলা শিক্ষকদের জন্য সন্তানের জন্মের সার্টিফিকেট।
  • স্বামী-স্ত্রী উভয়ের পোস্টিং স্থানের মধ্যে দূরত্বের সার্টিফিকেট।
  • পোস্টিং এর স্থান এবং স্থায়ী ঠিকানার মধ্যে দূরত্বের সার্টিফিকেট।
  • সমস্ত ডকুমেন্টস আপলোড করার সময় তাদের সাইজ ২০০ কেবির বেশি না হয় ও সেগুলোর পিডিএফ ফরম্যাটে আপলোড করতে হবে।

উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির জন্য অনলাইন প্রক্রিয়ায় আবেদন কিভাবে করবেন?

উৎসশ্রী পোর্টালের মাধ্যমে শিক্ষক শিক্ষিকা ও শিক্ষা কর্মীরা বদলির জন্য অনলাইনে কিভাবে আবেদন করবেন তার বিস্তারিত তথ্য নিচের ছবি সমেত দাওয়া হল।

💠শিক্ষক ও শিক্ষা কর্মীরা উৎসস্থল পোর্টালের মাধ্যমে অনলাইনে বদলির আবেদন করার জন্য প্রথমেই আপনাকে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট- https://banglarshiksha.gov.in/utsashree/ অথবা এখানে ক্লিক করুন

💠ওয়েব সাইটটি ওপেন হলে ‘অ্যাপ্লাই ফর ট্রানস্ফার’ (APPLY FOR TRANSFER) এই বাটনটিতে ক্লিক করুন।

উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির আবেদন1

💠এরপর এগ্রিমেন্টের বক্স এ টিক দিয়ে প্রসিড এ ক্লিক করুন।

উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির আবেদন2

💠এবার টিচার লগইন পেজ থেকে ‘সিলেক্ট ওএসএমএস টাইপ‘ (Select OSMS Type) ড্রপডাউন মেনুতে প্রাইমারি অথবা সেকেন্ডারি দুটি অপশন এর মধ্যে যেটি আপনার প্রয়োজন সেটি সিলেক্ট করুন। এবারে বর্তমান স্কুলের ডিস্ট্রিক ও বর্তমান স্কুলের সার্কেল ড্রপডাউন মেনু থেকে সিলেক্ট করুন। তারপরের ঘরটিতে ৮ সংখ্যার টিচার ইউনিককোডটি দিন। এবং তারপরে ঘরটিতে প্যান কার্ড নাম্বার এন্টার করুন। এবারে ক্যাপচা কোড টি বসিয়ে ‘লগইন'(Login) -এ ক্লিক করুন।

উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির আবেদন3

💠পরবর্তী ধাপে ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড আপনার রেজিস্টার মোবাইলে এবং ইমেইলে সেন্ড হবে সেখান থেকে ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড (OTP) টি বসিয়ে ‘প্রসিড’ (PROCEED) বটন-এ ক্লিক করুন।

উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির আবেদন4

💠পরবর্তী পেজ থেকে জেনারেল ট্রান্সফার ম্যানেজমেন্ট অপশনে ক্লিক করলে দুটি অপশন পাওয়া যাবে সেখান থেকে প্রথমে’ ইনিশিয়েট জেনারেল ট্রান্সফার'(INITIATE GENERAL TRANSFER) -এ ক্লিক করে কাজগুলো সেরে নিতে হবে।

উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির আবেদন5

💠 ‘ইনিশিয়েট জেনারেল ট্রান্সফার'(INITIATE GENERAL TRANSFER) অপশনে ক্লিক করার পর নিচের ছবির মত ফরম ওপেন হবে। উপরে সমস্ত ডিটেলসগুলি দেওয়া থাকবে এবং তার নিচে ‘ডাউনলোড গাইডলাইন অফ টিচার ট্রানস্ফার’ এই অপশনে ক্লিক করে গাইডলাইন টি ডাউনলোড করে অবশ্যই পড়ে নিতে হবে।
এরপর যে স্কুলে বদলি নিতে চান তার ডিস্ট্রিক্ট সিলেক্ট করুন Preferred District ডপডাউন মেনু থেকে, তাপর সাব ডিভিশন সিলেক্ট করুন, স্কুলের নাম সিলেক্ট করুন, এরপর ‘চেক ভ্যাকান্সি‘ (Check Vacancy) বাটনে এ ক্লিক করুন এবং দেখে নিন সেই স্কুলে ভ্যাকান্সি রয়েছে কিনা। ‘এড মোর স্কুল‘ (ADD MORE SCHOOL) অপশন থেকে আরো স্কুল সিলেট করে নিতে পারেন।
যদি ভ্যাকান্সি স্ট্যাটাস অ্যাভেলেবল থাকে তাহলে ‘রিজিওন‘ অপশন থেকে আপনি যে কারণে বদলি হতে চান সেই রিজিওনটি সিলেক্ট করুন এরপর সেই কারণের সাপোর্টিং ডকুমেন্টস ও ডিসটেন্স সাপোর্টিং ডকুমেন্টস আপলোড করতে হবে। সেগুলির সাইজ ২০০ কেবি থেকে যেন বেশি না হয় এবং ফাইল টাইপ পিডিএফ ফরম্যাটে আপলোড করতে হবে। বাকি অংশগুলো ফিলাপ করে এগ্রিমেন্ট চেক বক্সে টিক দিয়ে ‘প্রসিড'(PROCEED) এ ক্লিক করুন।

উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির আবেদন7
উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির আবেদন8
উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির আবেদন9

💠’প্রসিড'(PROCEED) ক্লিক করলেই একটি নোটিশ আসবে সব ঠিকঠাক থাকলে সেটা ওকে করে দিন।

উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির আবেদন 10

💠এরপর চেকবক্সে টিক দিয়ে ‘ফাইনালাইস’ (FINALIZE) করে দিন তবে মনে রাখতে হবে ফাইনালাইস করার আগে যতবার খুশি আপনি আপনার ইনফরমেশন গুলো আপডেট করতে পারেন। কিন্তু একবার ফাইনালাইস বটনে ক্লিক করে দিলে আপনার আবেদনটি সাবমিট হয়ে যাবে এরপর আপনি আর আপডেট করতে পারবেন না।

উৎসশ্রী পোর্টালে বদলির আবেদন

এই ভাবে শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মীরা ‘উৎসশ্রী’ পোর্টালে বদলির আবেদন করতে পারেন ও এই পোর্টালে আবেদনটি কোন পর্যায়ে রয়েছেছে তার অবস্থান সম্পর্কে জানতে পারবেন।

উৎসশ্রী হেল্পলাইন নম্বর ও মেইল:

হোয়াটসআপ- ৬২৯২২৬৩৩০০
টোলফ্রি 📞 নম্বর- ১৮০০১০২৩১৫৪
টেকনিক্যাল হেল্প – 📞 ৮৯০২৬০২৫১৯
মেইল এড্রেস- onlineteachertransfer@gmail.com

*আরো পড়ুন- বিভিন্ন ধরনের সরকারী প্রকল্প

Share This:
Advertisement

Check Also

caste certificate

অনলাইনে কিভাবে SC,ST,OBC caste certificate এর জন্য আবেদন করবেন। How to apply for SC,ST,OBC caste certificate online 2023।

caste certificate এর জন্য আবেদন:- বন্ধুরা আজকের পোস্টটিতে আমরা আলোচনা করব কিভাবে আপনি বাড়িতে বসে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *