Breaking News
খাদ্যসাথী কার্ড ও রেশন কার্ড জন্য অনলাইন আবেদন

খাদ্যসাথী কার্ড -এর জন্য অনলাইন আবেদন ও রেশন কার্ড সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য

খাদ্যসাথী কার্ড ও রেশন কার্ড : পশ্চিমবঙ্গ সরকারের জনদরদি বিভিন্ন প্রকল্পের মধ্যে খাদ্য সাথী প্রকল্পটি অন্যতম। এই প্রকল্পটি পশ্চিমবঙ্গ সরকার ২০১৬ সালের ২৭ শে জানুয়ারি শুরু করেছিল, এই প্রকল্পের প্রধান উদ্দেশ্য হলো রাজ্যের জনসংখ্যার ৯০% প্রায় ৭ কোটি মানুষ ২ টাকা কেজি দরে চাল ও গম পাওয়ার সুবিধা আর ৫০ লাখ বাজার মূল্যের অর্ধেক দামে রেশন সুবিধা।
পশ্চিমবঙ্গ সরকার রেশন কার্ড গুলিকে ডিজিটাইজ করার প্রক্রিয়া চালাচ্ছে যাতে প্রত্যেকটি মানুষের কাছে রেশন সুবিধাটি পৌঁছে দেওয়া যায়। সরকার মানুষের দোরগোড়ায় রেশন ব্যবস্থা কে পৌঁছে দেওয়ার জন্য দুয়ারের রেশন নামে নতুন একটি প্রকল্প শুরু করেছে।

জনগণকে খাদ্যসাথী কার্ড -এর অধীনে বিভিন্ন পরিষেবা প্রদানের উদ্দেশ্যে পশ্চিমবঙ্গ সরকার দুয়ারে সরকার নামে প্রচার অভিযান চালু করেছে। এই দুয়ারে সরকারের মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গ সরকার বিভিন্ন জনদরদি প্রকল্পগুলিকে জনগণের নিকট পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেছে।
খাদ্য সাথী কার্ড তৈরী বা অন্যান্য তথ্যের জন্য দুয়ার সরকার ক্যাম্পে বা সরকারি পোর্টালে আবেদন করতে পারেন।

Table of Contents

ডিজিটাল রেশন কার্ড সম্পর্কে কিছু প্রশ্ন ও তার উত্তর নিচে দেওয়া হল:

দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে বা অনলাইনে খাদ্যসাথী কোন কোন পরিষেবা পাওয়া যায়?

  • নতুন পরিবার বা ব্যক্তিকে ভর্তুকি যুক্ত রেশন ব্যবস্থার আওতায় নিয়ে আসার আবেদন (ফরম-৩)
  • পরিবারের কোন সদস্য যদি কার্ড না পেয়ে থাকে তবে তার জন্য আবেদন (ফরম ৪)
  • ডিজিটাল কার্ডের ভুল তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন (ফরম ৫)
  • রেশন দোকান পরিবর্তন করার জন্য আবেদন (ফরম ৬, ১৩ ও ১৪)
  • মৃত্যু বা অন্য কোন কারণে কার্ড সারেন্ডার করার জন্য আবেদন (ফরম ৭)
  • বিকল্প ডিজিটাল কার্ড পাওয়ার জন্য আবেদন (ফরম ৯)
  • জেনারেল ক্যাটাগরিতে সরকার বা ভর্তুকিহীন রেশন কার্ডের জন্য আবেদন (ফরম ১০)
  • রেশন কার্ডের সাথে আধার ও মোবাইল নম্বরের যুক্ত করা (ই-কেওয়াইসি)

*এছাড়া আরো পড়ুন- দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে কি কি সুবিধা পাওয়া যায়।

আরকেএসওয়াই (RKSY) এর পুরো নাম কি?

রাজ্য খাদ্য সুরক্ষা যোজনা (Rajya Khadya Suraksha Yojana)

আরকেএসওয়াই -১ (RKSY-1) ও আরকেএসওয়াই -২ (RKSY-2) এর পার্থক্য কি?

আরকেএসওয়াই -১ (RKSY-1) হল জেনারেল বা ভর্তুকিবিহীন কার্ড আর আরকেএসওয়াই -২ (RKSY-2) হল ভর্তুকিযুক্ত রেশন কার্ড।

আমার ও আমার পরিবারের কারও কোনও রেশন কার্ড নেই তাহলে আমি কোন ফরমে আবেদন করব?

আপনি খাদ্যসাথী বা ভর্তুকিযুক্ত কার্ড পাবার জন্য ৩ নম্বর ফরমে আবেদন করতে পারেন আর আপনার যদি ভর্তুকি বিহীন/জেনারেল কার্ড এর প্রয়োজন হয় তাহলে আপনি ১০ নম্বর ফরমে আবেদন করতে পারেন

পরিবারের কোন বা কিছু সদস্য বাদ পড়ে গেলে কোন ফরমে আবেদন করতে হবে?

এক্ষেত্রে ৪ নম্বর ফরমে আবেদন করতে হবে

ফর্ম ৩ ও ৪ জমা করার সঙ্গে কি কি নথি পত্র দিতে হবে

ফর্ম ৩ জমা করার সঙ্গে যে নথিগুলো দিতে হবে সেগুলো হলো:

  • আবেদনকারীর বয়স ৫ বছরের বেশি হলে আধার কার্ডের ফটোকপি আর পাঁচ বছরের নিচে হলে জন্ম সার্টিফিকেটের ফটোকপি দিতে হবে।
  • আধার উল্লেখিত ঠিকানা ছাড়া অন্য ঠিকানা হলে সেই ঠিকানার প্রমাণ যেমন- পাসপোর্ট/ লাইটের বিল/ পোষ্টপেইড মোবাইল বিল/ ডাইভিং লাইসেন্স/ ল্যান্ডফোনের বিল ফটোকপি দিতে হবে।
  • আবেদনকারীর নিজের অথবা পরিবারের একটি বৈধ মোবাইল নম্বর দিতে হবে।

ফর্ম ৪ -এর সঙ্গে যে নথিপত্রগুলো দিতে হবে সেগুলি হল:

  • পরিবারের প্রধান বা অন্য সদস্যদের ডিজিটাল কার্ডের ফটোকপি দিতে হবে।
  • আবেদনকারীর বয়স ৫ বছরের বেশি হলে আধার কার্ডের ফটোকপি আর পাঁচ বছরের নিচে হলে জন্ম সার্টিফিকেটের ফটোকপি দিতে হবে।
  • পরিবারের যে সকল সদস্যের ডিজিটাল রেশন কার্ড হয়েছে তাদের প্রত্যেকের আধার কার্ডের ফটোকপি দিতে হবে।
  • একটি বৈধ মোবাইল নম্বর দিতে হবে।

কার্ডের তথ্য ভুল থাকলে তা সংশোধন করার জন্য কোন ফরমে আবেদন করা যাবে?

এক্ষেত্রে ৫ নম্বর ফরমে আবেদন করতে হবে

৫ নম্বর ফরম এর সাথে কি কি নথিপত্র জমা করতে হবে?

৫ নম্বর ফরম জমা করার সাথে যেসব নথিপত্রগুলো প্রয়োজন হবে তা হল:

  • বর্তমান ডিজিটাল রেশন কার্ডের ফটোকপি।
  • আবেদনকারীর আধার কার্ডের ফটোকপি আর আবেদনকারী যদি পাঁচ বছরের কম বয়স হয় তাহলে জন্ম সার্টিফিকেটের ফটোকপি দিতে হবে।
  • সংশোধনের সমর্থনে প্রমান যেমন ভোটের কার্ড/ কিষান ক্রেডিট কার্ড/ ব্যাংকের পাস বই/ ডাইভিং লাইসেন্স/ পাসপোর্ট – এর ফটোকপি দিতে হবে।
  • পরিবারের সকল সদস্যের আধার কার্ডের ফটোকপি।
  • একটি বৈধ মোবাইল নম্বর।

রেশন দোকান পরিবর্তন করতে হলে কোন ফরমগুলি ফিলাপ করতে হবে?

পরিবারের সকল সদস্যের রেশন দোকান পরিবর্তনের জন্য ফর্ম-৬ আর কয়েকজনের যদি পরিবর্তন করতে হয় তাহলে ফর্ম-১৩ আর বিবাহ জনিত কারণে রেশন দোকান পরিবর্তন করতে হলে ফর্ম-১৪

ফর্ম ৬, ফর্ম ১৩, ফর্ম ১৪ জমা করার সময় কি কি নথি জমা করতে হবে?

  • ডিজিটাল কার্ডের ফটোকপি
  • আবেদনকারীর আধার কার্ডের ফটোকপি
  • পরিবারের সকল সদস্যের আধার কার্ডের ফটোকপি
  • বিবাহ জনিত কারণে রেশন দোকান পরিবর্তন করিতে চাইলে বিবাহের শংসাপত্রের ফটোকপি

পরিবারের এক বা একাধিক কার্ড সারেন্ডার করতে চাই তাহলে কোন ফরম প্রয়োজন?

রেশন কার্ড সারেন্ডার করার জন্য ৭ নম্বর ফরমে আবেদন করতে হবে

৭ নম্বর ফরমে আবেদন করার সঙ্গে কি কি নথি জমা করতে হবে?

  • ডিজিটাল রেশন কার্ড টি
  • ডেট সার্টিফিকেট

Ration Card হারিয়ে গেলে বা নষ্ট হয়ে গেলে বিকল্প রেশন কার্ডের জন্য কোন ফরমে আবেদন করতে হবে?

এক্ষেত্রে ৯ নম্বর ফরমে আবেদন করতে হবে।

৯ নম্বর ফরমে আবেদন করার জন্য কি কি নথি প্রয়োজন হবে?

  • ডিজিটাল রেশন কার্ডের ফটোকপি ও আধার কার্ডের ফটোকপি। বয়স পাঁচ বছরের নিচে হলে জন্ম সার্টিফিকেটের ফটোকপি।
  • যদি হারিয়ে যাওয়া রেশন কার্ডের ফটোকপি না থাকে তাহলে পরিবারের অন্য সদস্যদের ডিজিটাল কার্ডের ফটোকপি।
  • জিডি নম্বর হারিয়ে যাওয়া বা চুরির ক্ষেত্রে নম্বর যদি থাকে।
  • পরিবারের অন্য সকল সদস্যের আধার কার্ডের ফটোকপি।

ভর্তুকিহীন ডিজিটাল কার্ডের জন্য আবেদন করার ক্ষেত্রে কত নম্বর ফরম প্রয়োজন?

এক্ষেত্রে ১০ নম্বর ফরমে আবেদন করতে হবে।

১০ নম্বর ফরমে আবেদন করার সাথে কি কি নথি প্রয়োজন?

  • পুরানো রেশন কার্ডের ফটোকপি যদি থাকে।
  • আধার কার্ডের ফটোকপি বয়স পাঁচ বছরের নিচে হলে জন্ম সার্টিফিকেটের ফটোকপি।

রেশন কার্ড -এর সঙ্গে আধার কার্ড যুক্ত করতে চাই এই জন্য কি করতে হবে?

রেশন কার্ড ও আধার কার্ড এবং একটি বৈধ মোবাইল নম্বর নিয়ে সরাসরি রেশন দোকানে গিয়ে বায়োমেট্রিক প্রমাণীকরণ এর মাধ্যমে খুব দ্রুত রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ড সংযুক্ত করতে পারেন এবং মোবাইল নম্বরে সমস্ত ধরনের তথ্য পেতে পারেন। এছাড়া অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে অনলাইনে রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ড যুক্ত করার সুবিধা চালু হয়েছে এর জন্য নিচের লিংকে ক্লিক করে আপনার রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ড টি যুক্ত করতে পারেন।

রেশন কার্ডের সাথে আধার কার্ড যুক্ত করার লিংক

খাদ্যসাথী কার্ড এর জন্য আবেদন পত্র দুয়ারে সরকার বাদে আর কোথায় জমা করা যায়?

ভর্তুকিহীন বা rksy-2 কার্ডকে rksy-1 বা ভর্তুকিযুক্ত কার্ড এ পরিবর্তন করতে হলে ৮ নম্বর ফরম ফিলাপ করে খাদ্য ও সরবরাহ দপ্তরের অফিসে জমা করতে হবে ।

এছাড়া উপরে উল্লেখিত সকল ধরনের ফর্ম গুলি বাংলা সহায়তা কেন্দ্র ও অনলাইনে জমা করা যাবে।

ডিজিটাল কার্ডের আবেদন অনলাইনে জমা করার জন্য নিচে দেওয়া পদ্ধতি অনুসরণ করুন

প্রথমে খাদ্য দপ্তর এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট (food.wb.gov.in)-এ প্রবেশ করুন বা এখানে ক্লিক করুন
এরপর Ration Card মেনুতে এপ্লাই অনলাইন সেকশনে আন্ডারে আপনি যে ফরমটি জমা করতে চান সেই ধরণের ফর্ম মেনুতে ক্লিক করুন যেমনটি নিচের ছবিতে দেওয়া হয়েছে।

রেশন কার্ড জন্য অনলাইন আবেদন-1

এরপর নতুন পেজে মোবাইল নম্বর দিয়ে গেট ওটিপি ক্লিক করুন ও ওটিপি এন্টার করে পরবর্তী নিদের্শ গুলি পূরণ করে আবেদনপত্রটি সাবমিট করুন।

রেশন কার্ড জন্য অনলাইন আবেদন 2

রেশন কার্ড -এর আবেদন করার পর আবেদনটির স্ট্যাটাস চেক করতে পারেন নীচে দেওয়া লিংক থেকে।

রেশন কার্ড আবেদনটির স্ট্যাটাস চেক

অফলাইনে আবেদন করার ক্ষেত্রে ফরমগুলি ডাউনলোড করতে পারেন নীচের লিংক থেকে।

রেশন কার্ডের ফ্রম ডাউনলোড

Share This:
Advertisement

Check Also

গ্রাম পঞ্চায়েতের ঘরের লিস্ট সংক্রান্ত সমস্ত প্রশ্ন-উত্তর

আবাস প্লাস যোজনায় গ্রাম পঞ্চায়েতের ঘরের লিস্ট সংক্রান্ত সমস্ত প্রশ্ন-উত্তর । Pradhan Mantri Awas Yojana Gramin List AtoZ Information

Pradhan Mantri Awas Yojana Gramin (প্রধান মন্ত্রী গ্রামীন আবাস যোজনা) সংক্ষেপে পিএমএওয়াই(জি) PMAY(G) বা আবাস …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *