Breaking News
নতুন প্যান কার্ড বানানো জন্য কিভাবে অনলাইন আবেদন করবেন

নতুন প্যান কার্ড বানানোর জন্য কিভাবে অনলাইন আবেদন করবেন । প্লাস্টিক প্যান কার্ড বানাতে কত খরচ হবে ও কি ডকুমেন্টস লাগবে

বন্ধুরা, আজকের এই প্রবন্ধটিতে থেকে আমরা জানবো কিভাবে ঘরে বসে সঠিকভাবে অনলাইনে নতুন প্যান কার্ড বানানোর জন্য আবেদন করা যায় এবং এর জন্য আপনাকে কি কি ডকুমেন্টস দিতে হবে এবং কত টাকা চার্জ দিতে হবে। যদি আপনার পছন্দ মত ফটো ও সিগনেচার সমেত প্লাস্টিক প্যান কার্ড বানাতে চান তাহলে এই প্রবন্ধটি সম্পূর্ণভাবে পড়ুন। বর্তমানে প্যান কার্ড কিন্তু শুধু আয়কর দেওয়ার জন্য নয় পাশাপাশি পরিচয় পত্র বয়সের প্রমাণপত্র হিসেবেও প্যান কার্ডের যথেষ্ট গুরুত্ব রয়েছে।

নতুন প্যান কার্ড বানানোর জন্য কি কি ডকুমেন্টস প্রয়োজন ?

আইডেন্টি প্রুফ হিসাবে
আধার কার্ড
ভোটার কার্ড
ড্রাইভিং লাইসেন্স
রেশন কার্ড
পাসপোর্ট
পেনশন কার্ড
রাজ্য অথবা কেন্দ্র সরকারের দারা অনুমোদিত আপনার ছবি আছে এই ধরনের কার্ড

এড্রেস প্রুফ হিসাবে
আধার কার্ড
ভোটার কার্ড
ড্রাইভিং লাইসেন্স
পোস্ট অফিসের বই
ব্যাংকের পাস বই
পাসপোর্ট
ইত্যাদি

জন্ম তারিখ প্রুফ করার জন্য
আধার কার্ড
ভোটার কার্ড
ড্রাইভিং লাইসেন্স
পাসপোর্ট
মাধ্যমিকের সার্টিফিকেট
বার্থ সার্টিফিকেট
ইত্যাদি

নতুন প্যান কার্ড তৈরীর জন্য কিভাবে অনলাইন আবেদন করবেন?

অনলাইনে নতুন প্যান কার্ডের জন্য আবেদন (অ্যাপ্লিকেশন) করতে হলে প্রথমেই আপনাকে অফিশিয়াল ওয়েবসাইটের https://www.onlineservices.nsdl.com/paam/endUserRegisterContact.html -এই পেজটিতে যেতে হবে অথবা এখানে ক্লিক করে ট্যাক্স ইনফরমেশন নেটওয়ার্ক অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন।
★এবার এই পেজে এপ্লিকেশন টাইপ এই বক্সের ড্রপ ডাউনমেনু থেকে আপনার প্রয়োজনীয় অপশনটি বেছে নিন যদি আপনি ভারতে নাগরিক হন এবং নতুন প্যান কার্ড করতে চান তাহলে ‘নিউ প্যান ইন্ডিয়ান সিটিজেন ফ্রম ৪৯এ’ এই অপশনটি বেছে নিন অথবা বাকি অপশন গুলো দেখুন। এরপর ক্যাটাগরি বক্স থেকে আপনার প্যান কার্ড কোন ক্যাটাগরি হবে সেটা বেছে নিন। তারপর এপ্লিকেন্ট ইনফরমেশন থেকে টাইটেল দিন, সারনেম দিন, ফার্স্ট নেম লিখুন, তারপর জন্মের তারিখ এন্টার করুন, ইমেইল আইডি দিন ও মোবাইল নম্বরটি দিয়ে নিচের প্রাইভেসি বক্সটি চেক করে ক্যাপচা কোডটি ভরে সাবমিট (Submit) বাটনে ক্লিক করুন।

নতুন প্যান কার্ড তৈরির টিউটোরিয়াল 1

★পরবর্তী পেজ থেকে ‘টোকন নাম্বার’ কপি করে রাখুন তারপর ‘কন্টিনিউ উইথ প্যান অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম’ এই বটনটিতে ক্লিক করুন।

নতুন প্যান কার্ড তৈরির টিউটোরিয়াল 2

★এরপর আপনার সামনে পার্সোনাল ডিটেলস ওপেন হবে এখানে আপনি যেভাবে কেওয়াইসি (KYC) ডকুমেন্ট সাবমিট করবেন সেই অপশনটিকে চেক করে দিন। যেমন ‘সাবমিট স্ক্যান ইমেজেস থ্রু ই-সাইন’ এই অপশনটি চুজ করলে আপনার ফটো এবং স্বাক্ষর আপলোড করতে পারবেন এবং সেগুলো আপনার প্যান কার্ডে এড হয়ে আসবে। তারপর স্কোল ডাউন করে নিচের দিকে আসুন এখানে আধার নাম্বার দিন এবং অন্যান্য অপশনগুলিকে চেক করে নিন তারপর আধার কার্ড অনুসারে আপনার নামটি দিন তারপর বাবার নাম এবং মায়ের নাম টাইপ করে করে নেক্সট (Next) বাটনে ক্লিক করুন।

★এবারের কন্টাক্ট এন্ড আদার ডিটেলস (Contact and other details) পেজে সোর্স অফ ইনকাম থেকে আপনার ইনকামের ধরনটি সিলেক্ট করুন। ইনকাম কম হলে নো ইনকাম (No income) সিলেক্ট করুন। এরপর এড্রেস ফর কমিউনিকেশন থেকে রেসিডেন্স অথবা অফিস এর মধ্যে যেন একটি সিলেক্ট করুন। রেসিডেন্স অ্যাড্রেস আপনার এড্রেস আইডি প্রুফ অনুসারে ফিলাপ করে দিন। অফিস এড্রেস আপনি যদি আপনার অফিসের অ্যাড্রেস দিতে চান তাহলে ওই ঘরগুলো ফিলাপ করুন। টেলিফোন নাম্বার এন্ড ইমেল আইডি ডিটেলস সবকিছু ঠিকঠাক মতো ফিলাপ করুন। এরপর ‘এস এস’Representative Assessee’ অপশনটিতে যদি মাইনোরের জন্য কার্ড বানান তাহলে ‘ইয়েস’ করুন না হলে ‘নো’ অপশনটি চেক করে নেক্সট বাটনে ক্লিক করে দিন ।

★এরপর এড কোড (Ad Code) পেজে আপনি যদি আপনার নিকটবর্তী ট্যাক্স অফিসের কোড নাম্বার জানেন তাহলে উপরের খোপগুলোতে ভরে দিন আর না জানলে নিচের ‘হেল্প অন অ্যাট কোড’ সেকশনে থেকে ইন্ডিয়ান সিটিজেন চেক করে আপনার রাজ্য এবং শহরের নাম ড্রপ ডাউন মেনু থেকে সিলেক্ট করে দিলেই নিচের Choose Ad Code খোপটিতে আপনার এরিয়ার সমস্ত ট্যাক্স অফিসগুলোর নাম এবং কোড গুলো চলে আসবে সেখান থেকে আপনার প্রয়োজনীয় অফিসটি সিলেক্ট করে নেক্সট বটনে ক্লিক করুন। 

★এরপর ডকুমেন্ট ডিটেলস পেজ টিম ওপেন হবে সেখানে প্রুফ আইডেন্টিটি থেকে আপনি কি ধরনের আইডেন্টিটি ব্যবহার করবেন মেনু থেকে বেছে নিন তারপর প্রুফ অ্যাড্রেস এই বক্সের থেকে কি ধরনের এড্রেস প্রুফ আপনি দিবেন সেটা সিলেক্ট করুন এবং নিচের সেকশনে আপনার ফটো এবং সিগনেচার আপলোড করে আপলোড বটনে ক্লিক করুন। এরপর আপলোড সাপোর্টিং ডকুমেন্টস এখানে আপনি উপরে যে যে ডকুমেন্ট সিলেক্ট করেছেন সেগুলো এখানে আপলোড করে আপলোড বটনে ক্লিক করে দিন। এবং সাবমিট (Submit) বাটনে ক্লিক করে দিন। 

★এরপরের পেজে পার্সোনাল ডিটেলস এর ঘরে আধার কার্ডের প্রথম আটটি নম্বর এন্টার করে পেজটি স্কোল ডাউন করে দেখে নিন সব ইনফরমেশন ঠিক আছে কিনা ঠিক থাকলে নিচে প্রসিড (Proceed) বটনে ক্লিক করুন। 

★এবার পেমেন্ট পেজে আপনি কিভাবে পেমেন্ট করবেন সেই অপশনটিকে বেছে নিন। এরপর নিচের ট্রাম এন্ড সার্ভিস এগ্রিমেন্টে টিক দিয়ে প্রসিড টু পেমেন্ট (Proceed to Payment) বটনটিতে ক্লিক করুন। এবং পেমেন্ট কনফার্ম করুন। বর্তমানে জিএসটি সমেত ১০৬ টাকা ৯০ পয়সা চার্জ আপনাকে পেমেন্ট করতে হবে ফিজিকাল প্লাস্টিক প্যান কার্ড বানানোর জন্য। 
পেমেন্ট সাকসেসফুল হয়ে গেলে কন্টিনিউ (Continue) বটনটিতে ক্লিক করুন। এরপর নিচের দিকে এসে ট্রাম এন্ড কন্ডিশন বক্সটি চেক করে অথেন্টিকেট (Authenticate) বটনটিতে ক্লিক করুন।

★এরপর ওটিপি অথেনটিকেশন (OTP Authentication) বটনটিতে ক্লিক করুন।

★এবার মোবাইলে একটি ওটিপি (OTP) যাবে সেই নাম্বারটি ওটিপির ঘরে বসিয়ে সাবমিট (Submit) বটনে ক্লিক করুন।

★এরপর কন্টিনিউ উইথ ই-সাইন (Continue with eSign) বটন এ ক্লিক করে দিন।

★এবারে নিচের মতো এটি পেজ ওপেন হবে সেখানে ট্রাম এন্ড কন্ডিশনে বক্সের চেক করে নিচের খোপে আধার নম্বর দিয়ে সেন্ট ওটিপি বটনে ক্লিক করে দিন। 

★এবার আপনার আধার নম্বরের সঙ্গে যে মোবাইলটি রেজিস্ট্রেশন করা আছে সেই মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি (OTP) সেন্ড হবে, সেটি এন্টার ওটিপি (Enter OTP) খোপে বসিয়ে ভেরিফাই ওটিপিতে (Verify OTP) বোতামে ক্লিক করে দিন।

★আপনার নতুন প্যান কার্ড এপ্লিকেশন করার যে পদ্ধতি সেটি সাকসেসফুলি সম্পন্ন হয়েছে। এবং পাসওয়ার্ড প্রটেক্টেড রেফারেন্স কপি পিডিএফ ডাউনলোড করে নিন।

বন্ধুরা, আশা করি এই প্রবন্ধটি পাঠের মাধ্যমে আপনারা অনলাইনে নতুন প্যান কার্ড তৈরীর জন্য সঠিকভাবে আবেদন করতে পারবেন এবং একটি নিজের পছন্দমত ছবি ও স্বাক্ষর সমেত প্লাস্টিকের প্যান কার্ড আপনার নিকটবর্তী পোস্ট অফিস হইতে সংগ্রহ করতে পারবেন। আপনি উপকৃত হলে এই প্রবন্ধটি আপনার বন্ধুদের মধ্যে অবশ্যই শেয়ার করুন।

*আরো পড়ুন- >মাত্র ১০ মিনিটে ই-প্যান কার্ড অনলাইন আবেদন ও ডাউনলোড করে নিন

> প্যান কার্ড আধার কার্ড লিংক কিভাবে করাবেন? প্যান ও আধার কার্ড লিঙ্ক স্ট্যাটাস চেক করুন

আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেল জয়েন করার জন্য ক্লিক করুন- https://t.me/loandarkar

Share This:
Advertisement

Check Also

passport

অনলাইনে পাসপোর্ট আবেদন করার পদ্ধতি। কিভাবে খুব সহজে অনলাইনে পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করবেন। How to apply for passport online 2023।

অনলাইনে পাসপোর্ট আবেদন :- বন্ধুরা আমাদের সকলেরই প্রিয় একটি সুপ্ত ইচ্ছা হলো বিদেশ ভ্রমণ। এবং …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *