Breaking News
পেটিএম বিজনেস লোন

Paytm Business Loan Kivabe Payoa Jai । পেটিএম বিজনেস লোন কি ভাবে পাওয়া যায়? 2Lakhs best offer

Paytm Business Loan: বন্ধুরা আজকের সময় যদি নতুন করে ব্যবসা খুলতে চান বা পুরনো নষ্ট হয়ে যাওয়া ব্যবসাটিকে আবার নতুন করে চালু করতে চান কিন্তু আর্থিক অসঙ্গতির কারণে এই কাজগুলি করতে পারছেন না তবে বন্ধুরা এই পোস্টটি আপনার অবশ্যই উপকারে লাগবে।
অপনার জীবনের স্বপ্নগুলোকে পূরণ করার জন্য প্রয়োজন অর্থের আর সেই অর্থ আসতে পারে বিজনেস বা চাকরি থেকে। আর বর্তমানের এই পরিস্থিতিতে চাকরি জোগাড় করা খুবই মুশকিল। এক্ষেত্রে ব্যবসাই একমাত্র রাস্তা হতে পারে যেখান থেকে অর্থ আয় করে আপনি আপনার স্বপ্নগুলোকে পূরণ করতে পারেন। কিন্তু এই ব্যবসা চালাতে তো অর্থের প্রয়োজন, আপনার হয়তো বিজনেস আইডিয়া রয়েছে বা বিজনেসকে উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষমতাও আপনার রয়েছে কিন্তু প্রয়োজনীয় অর্থ হয়তো আপনার নেই সেই কারণে আপনি ব্যবসা চালু করতে পারছেন না। এটা যদি আপনার সমস্যা হয়ে থাকে তো বন্ধুরা খুব মনোযোগ সহকারে পোস্টটি পড়ুন হয়তো এখন হয়তো আপনার আর্থিক সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। আজ আমি আপনাদের বিজনেস অনলাইন লোন এ বিষয়ে বলব। এটি একটি লোন অ্যাপ্লিকেশন আর এই কোম্পানির অ্যাপ্লিকেশনটি আমরা প্রায় প্রত্যেকেই অনলাইনে অর্থ লেনদেন এর জন্য ব্যবহার করে থাকি, আর সেটা হলো পেটিএম। এই পেটিএম বিজনেস লোন অ্যাপস থেকে আপনারা আপনাদের বিজনেসের জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ ঋণ হিসেবে নিতে পারেন। এখন এই পোস্টে আমি এই বিজনেস অ্যাপ টি থেকে কিভাবে লোন নিতে হয় কি কি কাগজপত্র প্রয়োজন হবে, কত টাকা পর্যন্ত এরা লোন দেয়, কতদিনের জন্য আপনি এই লোন নিতে পারবেন এইসব বিভিন্ন তথ্য বিস্তারিত হবে আলোচনা করা হলো। যাতে আপনাদের এই লোন পেতে সুবিধা হয়।

*এছাড়া আরো পড়ুন- Paytm loan kivabe Paoya Jai:পেটিএম লোন কিভাবে নিবেন?

Paytm Business Loan

পেটিএম কি?

এই লোন এর বিষয়ে বিস্তারিত জানার আগে এটা জানা প্রয়োজন যে পেটিএম আসলে কি? বন্ধুরা পেটিএম হলো ভারতের এক নম্বর পেমেন্ট অ্যাপ্লিকেশন, এটির সাহায্যে আপনি এক ব্যাংক থেকে আরেক ব্যাংকে অথবা এক পেটিএম থেকে আরেক পেটিএম এ টাকা পাঠাতে পারবেন। এর সাহায্যে আপনি তাৎক্ষণিক অর্থ লেনদেন করতে পারবেন যেমন অনলাইন শপিং, ওয়েব পেমেন্ট, ফ্লিপকার্ট অ্যামাজন, জোমাটো, সুইগী র মত অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট থেকে জিনিসপত্র ক্রয় করতে পারবেন, রেলের টিকিট গ্যাসের বিল জলের বিল পরিশোধ করতে পারবেন। মোটকথা আপনি নগদ অর্থের পরিবর্তে পেটিএম এর সাহায্যে আপনার প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ক্রয় করতে পারবেন বা অন্যের কাছ থেকে পেমেন্ট নিতে পারবেন। এই অ্যাপ্লিকেশনটি ৩০ শে এপ্রিল ২০১২ সালে প্রথম চালু হয়েছিল এবং তখন থেকে আজ পর্যন্ত প্লে স্টোরে হইতে প্রায় ১০০ মিলিয়নের বেশি ডাউনলোড হয়েছে।

পেটিএম ফর বিজনেস কি?

বন্ধুরা উপরে আমরা জানতে পারলাম যে পেটিএম আসলে কি এবার নিশ্চয়ই ভাবছেন পেটিএম বিজনেস কি? তো বন্ধুরা পেটিএম ব্যবসার জন্য একটি আলাদা অ্যাপ্লিকেশন চালু করেছে যার নাম পেটিএম বিজনেস। এই অ্যাপটিতে আপনার বিজনেস কার্ড রেজিস্টার করে পেমেন্ট একসেপ্ট করতে পারবেন জিরো পার্সেন্ট কমিশনে। এপর্যন্ত গুগল প্লে স্টোর থেকে এই অ্যাপসটি প্রায় ১ কোটি ডাউনলোড হয়েছে। আপনি যদি এই বিজনেস অ্যাপটির সম্বন্ধে আরও বিস্তারিত যদি জানতে চান তাহলে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

পেটিএম বিজনেস লোন কত টাকা পর্যন্ত দেয়?

বন্ধুরা আপনারা যে কোন লোন কোম্পানির কাছ থেকে লোন নেওয়ার আগে অবশ্যই জেনে নেবেন তাঁরা কত টাকা আপনাকে লোন দিতে পারবে আর সেই অর্থে আপনার সমস্যার সমাধান হবে কিনা। যাতে করে ভবিষ্যতে আপনার প্রয়োজনীয় অর্থ কম না হয়ে যায় যার জন্য আপনাকে আবার লোন নেওয়ার প্রয়োজন পড়ে যায়। আর এক্ষেত্রে পেটিএম বিজনেস লোন আপনাকে 10 হাজার টাকা হইতে দু লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন দিচ্ছে।

পেটিএম বিজনেস লোন শতকরা সুদের হার কত?

বন্ধুরা কোন সংস্থার কাছ থেকে লোন নেওয়ার আগে আপনারা অবশ্যই জেনে নেবেন যে আপনাকে সর্বোচ্চ কত পারসেন্ট সুদ সেই কোম্পানিকে দিতে হবে। ভালোভাবে না জেনে নিলে পরবর্তীকালে আপনার পক্ষে ঋণ শোধ করতে অসুবিধা হতে পারে। আর এক্ষেত্রে পেটিএম বিজনেস লোন সবচেয়ে কম ১৫% আর সর্বোচ্চ ৪৬% বাৎসরিক সুদ নেয়।

Paytm Business Loan কত দিনের জন্য দেয়?

এরা আপনাকে ১৮০ দিনের জন্য লোন দেয়।

পেটিএম বিজনেস লোন এর বৈশিষ্ট্য গুলি কি কি?

  • এখান থেকে আপনি যথেষ্ট পরিমাণে লোন পাচ্ছেন
  • রেট অফ ইন্টারেস্ট বা সুদের হার খুব বেশি নয়
  • লোন পরিশোধের জন্য সময় পাচ্ছেন
  • আপনাকে বেশ কম প্রসেসিং ফ্রী দিতে হবে। টু পার্সেন্ট প্লাস জিএসটি
  • লোন আগে কোনরকম ফ্রী নেওয়া হয় না
  • এই লোন নেওয়ার প্রসিডিউর টি সম্পূর্ণ অনলাইন
  • ভারতবর্ষের যেকোনো জায়গা থেকে যেকোনো সময় লোন পাওয়া যায়
  • লোন নেওয়ার জন্য ডকুমেন্টস খুবই কম প্রয়োজন হয়
  • লোন এমাউন্ট ডাইরেক্ট ব্যাঙ্ক একাউন্টে প্রদান করা হয়
  • লোন এমাউন্ট আপনার ইচ্ছামত জায়গায় খরচা করতে পারেন
  • পেটিএমে আপনার ক্রেডিট স্কোর বাড়াতে সাহায্য করে

পেটিএম বিজনেস লোন কারা নিতে পারে?

  • আপনাকে ভারতীয় নাগরিক হতে হবে
  • আপনার বয়স সর্বনিম্ন ২১ বছর আর সর্বোচ্চ ৫৬ বছর হতে হবে
  • আধার কার্ড ও প্যান কার্ড থাকতে হবে
  • সচল রয়েছে এরকম একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট অবশ্যই থাকতে হবে

পেটিএম বিজনেস লোন নেওয়ার জন্য কি কি কাগজপত্র প্রয়োজন?

আধার কার্ড
প্যান কার্ড
ব্যাংক একাউন্ট যেটি অবশ্যই সচল থাকতে হবে
আর আপনার বিজনেস প্রুফ

পেটিএম বিজনেস লোন এর জন্য কিভাবে এপ্লাই করব?

>প্রথমে পেটিএম ফর বিজনেস (Paytm for Business) অ্যাপ্লিকেশনটি গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করে মোবাইলে ইন্সটল করে নিন
>এরপর আপনার মোবাইল নম্বর দিয়ে রেজিস্টার করে নিন। আপনার পেটিএমের অ্যাকাউন্ট দিয়ে লগইন করিতে পারেন অথবা নতুন অ্যকাউন্ট ক্রিয়েট করতে পারেন।
>এখন আপনার বিজনেস কে এখানে রেজিস্টার করে নিবেন
>আপনি যদি আগে থেকেই এই অ্যাপসটি ব্যবহার করে লেনদেন করেন তাহলে আপনাকে লোন অফার করবে, আর তা না হলে এই অ্যাপ্লিকেশনের মধ্যে পেটিএম বিজনেস লোন অপশন পাবেন সেটি সিলেক্ট করুন
>এরপর আপনার নাম ও টাইটেল এন্টার করুন
>এরপর আপনার ঠিকানা দিন
>পরবর্তী ধাপে আপনি আপনার ডকুমেন্টসগুলো কে আপলোড করে দিন
>এখন আপনি লোন অফার পেয়ে যাবেন সেখান থেকে আপনার প্রয়োজনীয় অর্থ সিলেক্ট করুন
>এখন আপনার অ্যাপ্লিকেশনটি রিভিউতে চলে যাবে
>এরপর আপনার কাছে একটি ফোন কল আসবে এবং কিছু প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা হবে
>সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আপনার লোনটি মঞ্জুর হয়ে যাবে এবং অর্থ আপনার ব্যাংক একাউন্টে চলে আসবে

তো বন্ধুরা আপনারা নিশ্চয়ই ধৈর্য ধরে মনোযোগ সহকারে এই পোস্টটি পড়লেন। পেটিএম বিজনেস লোন কিভাবে পাবেন এখানে সেই বিষয়ে সমস্ত তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। আশা করি এই তথ্যগুলি সাহায্যে আপনারা সফল ভাবে লোন নিতে পারবেন এবং আপনাদের বিজনেস কে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন। এই সমন্ধে যদি আরো বিস্তারিত তথ্য জানান তাহলে এদের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন এখানে ক্লিক করে। এই পোস্টটি যদি আপনার কোনো উপকারে এসে থাকে তাহলে অবশ্যই বন্ধুদের মধ্যে শেয়ার করবেন।

কোভিড 19 বা করোনা পরিস্থিতিতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি আকারের ব্যবসায়ীদের কাছে সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ ব্যবসা কি ভাবে নতুন করে দাঁড় করানো যায়, তার জন্য প্রয়োজন কার্যকরী মূলধন বা ওয়ার্কিং ক্যাপিটাল। আর পেটিএম বিজনেস লোন (Paytm Business Loan) এই সকল ব্যবসায়ীদের কাছে এই সুবিধাটি এনে দিয়েছে।

Share This:
Advertisement

Check Also

পিএনবি হাউসিং লোন ফর পাবলিক

পিএনবি হাউসিং লোন ফর পাবলিক কিভাবে আবেদন করবেন । পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক হোম লোন বিশেষ অফার

পিএনবি হাউসিং লোন : নতুন বাসস্থান ক্রয় বা নির্মাণ ও সম্প্রসারণ অথবা পুনর্নির্মাণের জন্য ঋণ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *